This website is about recent job circulars including govt jobs, bank job, govt bank job, private bank job, non bank financial organization job, public job, private job etc.It also includes BCS and other job preparation,job exam result, job exam schedule and job news in Bangla.

Breaking

Saturday, September 8, 2018

প্রাইমারিতে ফের নিয়োগ-ক্রীড়া ও সঙ্গীত বিষয়ে ৫১০৬ শিক্ষক নিয়োগ পাবে

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ক্রীড়া ও সঙ্গীত বিষয়ে শিক্ষক নিয়োগ দিতে যাচ্ছে সরকার। প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন প্রকল্পে (পিইডিপি) এ বিষয়ে প্রস্তাবনার আলোকে সারাদেশে মোট ৫ হাজার ১০৬ জন শিক্ষক নেয়া হবে। সেই মোতাবেক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ দুই বিষয়ে নতুন পদ সৃজন করা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের ক্লাসকে আরও প্রাণবন্ত করে তুলতে প্রতিটি স্কুলে ক্রীড়া ও সংগীত বিষয়ে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে বলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ক্রীড়া শারীরিক শক্তি ও সামর্থ্য বাড়াতে সহায়ক আর সঙ্গীত মানসিক উন্নয়ন, উন্নত রুচি ও আবেগ তৈরিতে ভূমিকা রাখে। একজন আদর্শ মানুষ তৈরিতে এই দুইয়ের ভূমিকা অতীব গুরুত্বপূর্ণ। এ লক্ষ্য পূরণে শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিষয়ে শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এসব শিক্ষকদের পিইডিপি-৪ এর আওতায় নিয়োগ দেয়া হলেও প্রকল্প শেষে তাদের রাজস্বখাতে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

জানা গেছে, সারাদেশে প্রায় ৬৫ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এসব বিষয়ে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। তার মধ্যে ক্রীড়া বিষয়ে ২ হাজার ৫৩ জন এবং সঙ্গীত বিষয়ে ২ হাজার ৫৩ জন শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। এসব শিক্ষকরা সপ্তাহে ছয় দিনে ১০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে ক্লাস করাবেন। আগামী দুই মাসের মধ্যে এই দুই বিষয়ে শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। আগামী বছরের শুরুতে এসব শিক্ষকদের নিয়োগ দেয়া হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব গিয়াস উদ্দিন আহমেদ জাগো নিউজকে বলেন, ‘ছোট থেকে শিশুদের মধ্যে তার অন্তর্জগতে মানবিক মূল্যবোধ তৈরি করতে হবে। আজকের যে সামাজিক অবক্ষয়, মাদকের ব্যাপক ছড়াছড়ি সেখান থেকে মুক্তি পেতে হলে শরীর ও মনের সুস্থতা অপরিহার্য। সেটিকে গুরুত্ব দিয়ে ক্রীড়া ও সঙ্গীত বিষয়ে শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘দেশের সকল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একজন করে সঙ্গীত ও ক্রীড়া বিষয়ে শিক্ষক নিয়োগ দিতে বিপুল পরিমাণ অর্থের প্রয়োজন হবে, সেটি সম্ভব না হওয়ায় আমরা ১০টি বিদ্যালয়ের জন্য একজন করে শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তারা সপ্তাহে রুটিন করে পার্শ্ববর্তী বিদ্যালয়ে গিয়ে ক্লাস নেবেন। প্রয়োজনে সেই বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষককে প্রশিক্ষণ দিয়ে অভিজ্ঞ করে তুলতে পারবেন। তার অনুপস্থিতিতে সেই শিক্ষক দায়িত্ব পালন করতে পারবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আগামী দুই মাসের মধ্যে সঙ্গীত ও ক্রীড়া বিষয়ে শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। আগামী বছর জানুয়ারি থেকে এসব বিষয়ে ক্লাস শুরু করা হবে।’আবেদন করার যোগ্যতা বিষয়ে জানতে চাইলে অতিরিক্ত সচিব গিয়াস উদ্দিন আহমেদ জানান, যোগ্যতার বিষয়টি এখনও চূড়ান্ত হয়নি। তবে আমরা ভাবছি- মেয়েদের ক্ষেত্রে এইচএসসি পাসের সঙ্গে সঙ্গীত কলেজ থেকে ছয় মাস বা এক বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা কোর্স থাকতে হবে। পাশাপাশি ছেলেদের জন্য স্নাতক পাসের সঙ্গে সঙ্গীত কলেজ থেকে ছয় মাস বা এক বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা কোর্স থাকতে হবে। তবে কেউ যদি সঙ্গীত কলেজ থেকে স্নাতক পাশ করে তাহলে আর ডিপ্লোমা কোর্স লাগবে না।
অন্যদিকে শারীরিক শিক্ষকদের ক্ষেত্রে মেয়েদের ক্ষেত্রে এইচএসসি পাসের সঙ্গে শারীরিক শিক্ষা কলেজ থেকে ছয় মাস বা এক বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা কোর্স থাকতে হবে। এছাড়া ছেলেদের ক্ষেত্রে স্নাতক পাসের সঙ্গে শারীরিক শিক্ষা কলেজ থেকে ছয় মাস বা এক বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা কোর্স থাকতে হবে। তবে কেউ যদি শারীরিক শিক্ষা কলেজ থেকে স্নাতক করে তাহলে আর ডিপ্লোমা কোর্স প্রয়োজন হবে না। এসব শিক্ষকরা বিধিমোতাবেক ১৪ গ্রেডে সহকারী শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পাবেন। এ সংক্রান্ত বিষয়ে দ্রুত সিদ্বান্ত নেয়া হবে জানান অতিরিক্ত সচিব।







No comments:

Post a Comment